Biography

শাহ মৌলানা আমীর

১৮৮৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি গুনুই গ্রামে শাহ মৌলানা আমীর জন্মগ্রহণ করেন৷ তিনি ১৯০৩ সালে ইসলামী শিক্ষা লালন কেন্দ্র দারুল উলুম দেওবন্দ মাদ্রাসায় ভর্তি হয়ে অল্প দিনের মধ্যেই লাঠি ও তরবারি পরিচালনা এবং মুষ্ঠিযুদ্ধ প্রতিযোগিতায় দেওবন্দ ছাত্রদের মধ্যে বিশেষ স্থান লাভ করেন এবং ভিন্নুট বীর উপাধিপ্রাপ্ত হন৷ ঐ মাদ্রাসার লেখাপড়ার শেষ পর্যায়ে মুসলিমবিদ্বেষী বিদেশীর অর্থপুষ্ঠ এক প্রবল প্রতাপশালী চেয়ারম্যান দেওবন্দ মাদ্রাসা ও এলাকার বিরোধিতা করলে তিনি তাকে হত্যা করেন এবং ছয় মাস জেল খাটেন৷ কলকাতায় তরবারি ও মুষ্ঠিযুদ্ধের প্রশিক্ষণের উস্তাদ ছিলেন শাহ মৌলানা আমীর৷ হোসেন শহীদ সোরাওয়াদর্ী তখন সেই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শন করে তাঁকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন৷ ১৯০৬ সালে তিনি বঙ্গবঙ্গ আন্দোলনে অংশ নেন এবং জমিয়াতুল উলামা ইসলামী ঐক্যজোটকে জোরদার করেন৷ খেলাফত আন্দোলনে তাঁর ভূমিকা অত্যন্ত তাত্‍পর্যপূর্ণ৷
১৯৪২ সালে হবিগঞ্জ কারাগারের ভিতর জেলার কর্তৃক কোরআনের অবমাননার সংবাদ পেয়ে তিনি জনতা নিয়ে জেলগেটে গিয়ে জেলারকে প্রহার করে জেল থেকে অনেক আসামী ছুটিয়ে আনেন৷ এই সময় পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বাঁধলে তাঁর ডাকে শহরের চারিদিক থেকে হবিগঞ্জ শহর লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে৷ পরে প্রশাসন ক্ষমা চেয়ে আসামীদের মুক্তি দেয়৷ এ বত্‍সরই ত্রিপুরার এক দুষ্ট দারোগাকে শায়েস্তা করে তিনি আলোচিত হন৷ যেখানেই ইসলাম বিরোধী কার্যক্রম সংগঠিত হয়েছে সেখানেই শাহ মৌলানা আমীর দ্রুত ছুটে গেছেন৷ ইসলামের বিরুদ্ধে বা কুরআনের বিরুদ্ধে কেহ কোন কথা উচ্চারণ করলে তিনি কঠোর জবাব দিতেন৷ ১৯৭১ সালে তিনি মৃতু্যবরণ করেন৷