Biography

ছিদ্দিক হাসান


কামালখানী মৌলভী বাড়িতে খানবাহাদুর রফিকুল হাসানের ঔরসে ছিদ্দিক হাসান জন্মগ্রহণ করেন৷ তিনি কলকাতা থেকে বি.এ পাশ করে ১৯১৯ সালে নিজ বাড়ির সাব রেজিস্টার অফিসে চাকরিতে যোগদান করেন৷ পরে বিভিন্ন স্থানে চাকরি করেন৷ একজন শিক্ষানুরাগী, দয়ালু ও ধার্মিক হিসেবে তিনি সকলের কাছে ছিলেন শ্রদ্ধার পাত্র৷ তাঁর ছয় ছেলে দেশ ও জাতির বৃহত্তর কল্যাণ করে জাতীয় ও আনতর্জাতিক ভাবে পুরস্কৃত হয়েছেন৷ বড় ছেলে নজমুল হাসান জাহেদ একজন সফল শিল্পপতি হিসেবে আনতর্জাতিক অঙ্গনে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন৷ তিনি দেশে স্কুল কলেজ ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান স্থাপনে আর্থিক সাহায্য প্রদান করছেন৷ বর্তমানে তিনি হবিগঞ্জ ২ এর জাতীয় সংসদ সদস্য৷ তাঁরই ছোট ভাই ফজলে হাসান আবেদ ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা৷ প্রথম জীবনে তিনি ইউরোপ ও কানাডায় একটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন৷ দারিদ্র্যপীড়িত ভূমিহীন জনগোষ্ঠির মান উন্নয়নে তিনি ১৯৭২ সালে ব্র্যাক প্রতিষ্ঠা করেন৷ পরে আয়েশা আবেদ ফাউন্ডেশন নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠানও তিনি গড়ে তুলেন৷ ব্র্যাকের মাধ্যমে তিনি প্রায় বিশ হাজার শিক্ষিত নারী-পুরুষের চাকরির সংস্থান এবং প্রায় ২৫ লক্ষ পরিবারের আত্মকর্মসংস্থান, স্বাস্থ্যসেবা, জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ, অবৈতনিক প্রাথমিক শিক্ষা, বয়স্ক শিক্ষা এবং পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য সহায়তা দিয়ে আসছেন৷
জনাব আবেদের উদ্ভাবনী চিনতা ভাবনা আধুনিক ব্যবস্থাপনা এবং উন্নয়ন কৌশল তৃতীয় বিশ্বে উন্নয়নের একটি মডেল হিসেবে বিবেচিত হচেছ৷ অমায়িক ও নম্র স্বভাবের জনাব আবেদ অসংখ্য আনতর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন৷ এ পর্যনত তিনি ম্যাগসাইসাই পুরস্কার, ইউনেস্কো নমা পুরস্কার, ওয়ার্ন্ড হাঙ্গার পুরস্কার ও মরিম প্যাট পুরস্কার এবং কানাডার কুইন্স বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন৷ এছাড়াও তিনি দেশ বিদেশের অনেক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন৷
তাঁর অন্যান্য ভাইয়েরাও ব্যবসা বাণিজ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছেন৷